ডেঙ্গু রোগের লক্ষণ ও প্রতিকার ২০২৩
ডেঙ্গু রোগের লক্ষণ ও প্রতিকার ২০২৩

ডেঙ্গু রোগের লক্ষণ ও প্রতিকার ২০২৩

ডেঙ্গু রোগের লক্ষণ ও প্রতিকার – আসসালামু আলাইকুম আশা করি সবাই ভাল আছেন। আপনাকে আমাকে ডেঙ্গু রোগ থেকে মুক্ত রেখেছেন এজন্য শুকরিয়া দেখেন আলহামদুলিল্লাহ। বর্তমানে বাংলাদেশে ডেঙ্গু জ্বর আক্রান্ত হচ্ছেন। তাই এক পাঠক জানতে চেয়েছেন ডেঙ্গু জ্বরের লক্ষণ ও প্রতিকার কি, ডেঙ্গু জ্বর কতদিন থাকে, ডেঙ্গু হলে করণীয়, ডেঙ্গু রোগের ঘরোয়া চিকিৎসা, ডেঙ্গু জ্বর হলে কি খেতে হবে এবং তিনি আরো জানতে চেয়েছেন ডেঙ্গু জ্বর হলে কি গোসল করা যাবে কিনা। তো চলুন নিম্নে থেকে ডেঙ্গু জ্বরের লক্ষণ ও প্রতিকার সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নেই।

ডেঙ্গু জ্বর কি | ডেঙ্গু কিভাবে ছড়ায়

বর্তমানে বাংলাদেশের ডেঙ্গু জ্বরের সিজন বলা যায়। কারণ কয়েক বছরের ডেঙ্গু জ্বরের প্রভাব পর্যালোচনা করলে দেখা যায় যে শেষ করে বর্ষা মৌসুমে ডেঙ্গু জ্বরের প্রভাব বেশি হয়। আপনি কি জানেন ডেঙ্গু জ্বর কিভাবে ছড়ায়? ডেঙ্গু জ্বর হলো একটি ভাইরাস বাহিত রোগ। ডেঙ্গু ভাইরাস দ্বারা আক্রান্ত হওয়ার ফলে ডেঙ্গু জ্বর এ আক্রান্ত হয়ে থাকে।

ডেঙ্গু ভাইরাসটি ছড়িয়ে থাকে ইজিপ্টাই মশার মাধ্যমে। ডেঙ্গু ভাইরাস যুক্ত ইজিপ্টািই মশা কোন ব্যক্তিকে কামড় দিলে সেই ব্যক্তি 5 থেকে 6 দিনের মধ্যে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে পড়ে।

ডেঙ্গুজ্বর মূলত ছোঁয়াচে রোগের মত। একজন ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হলে সেখান থেকে আক্রান্ত মশার মাধ্যমে আরেকজনের শরীরে কামড় দিলে সেই ব্যক্তি ডেঙ্গু জ্বর আক্রান্ত হয়ে পড়ে। এভাবে মূলত ডেঙ্গু জ্বর ছড়িয়ে পড়ে।

ডেঙ্গু জ্বর মূলত দুই ধরনের হয়ে থাকে। একটি হল ক্লাসিকাল ডেঙ্গু ফিভার এবং আরেক প্রকার ডেঙ্গু জ্বর হলো হেমো রেজিক ডেঙ্গু ফিভার। এই দুই প্রকার ডেঙ্গু জ্বরে মূলত বাংলাদেশি বিভিন্ন জায়গায় ছড়াচ্ছে। তো এখন আমরা ডেঙ্গু জ্বর কিভাবে হয় ডেঙ্গু জ্বর কিভাবে ছড়ায় এবং ডেঙ্গু জ্বর সম্পর্কে সামান্য ধারণা নিলাম। নিচে ডেঙ্গু রোগের লক্ষণ ও প্রতিকার সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে যাচ্ছি।

ডেঙ্গু রোগের লক্ষণ ও প্রতিকার ২০২৩

ডেঙ্গু জ্বরের লক্ষণ ও প্রতিকার

ডেঙ্গু ভাইরাস দ্বারা আক্রান্ত হলে তিন থেকে সাত দিনের মধ্যে ভাইরাস বহনকারী এডিস মশার কামড়ে যে ডেঙ্গু জ্বরের লক্ষণ বা উপসর্গ দেখা দিতে পারে। সে সম্পর্কে এখন দেখব। আমাদের প্রত্যেকেরই উচিত ডেঙ্গু জ্বরের লক্ষণ ও প্রতিকার সম্পর্কে জানা। জ্বর হলে বিশেষ করে যে লক্ষণ গুলো দেখায় দিয়ে থাকে।

  • ১। ডেঙ্গু জ্বর আক্রান্ত ব্যক্তির শরীরে জ্বর ১০২ থেকে ১০৫ ডিগ্রি ফারেনহাইট পর্যন্ত থাকতে পারে।
  • ২। ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত ব্যক্তি মাথা ব্যথা হবে প্রচুর।
  • ৩। আক্রান্ত ব্যক্তির কিছু খেতে পারবে না এবং বমি বমি ভাব থাকবে।
  • ৪। ডেঙ্গু জ্বর হলে সারা শরীরে ব্যথা হবে বিশেষ করে চোখের পিছনে ব্যথা হবে।
  • ৫। ব্যক্তির শীতলতা অনুভব করবে অর্থাৎ ডেঙ্গু হলে ঠান্ডা লাগবে প্রচুর পরিমাণে ব্যক্তির।
  • ৬। কোষ্ঠকাঠিন্য দেখা দিবে।
  • ৭। কোন কিছু খাওয়ার রুচি একেবারেই কমে যাবে।
  • ৮। আরিদের স্পন্দনের হার ও রক্তচাপ কমে যাবে।
  • ৯। পিসিতে ও শরীরের গিঁটে গিঁটে ব্যথা হবে।
  • ১০। ত্বকের বিভিন্ন স্থানে ফুসকুড়ি এবং গ্রন্থি ফুলে যাওয়ার লক্ষণ দেখা দেয়।
  • ১১। আক্রান্ত ব্যক্তির মাংসপেশি এবং অস্থিসন্ধি তে যন্ত্রণা অনুভব হয়।

উপরে ডেঙ্গু জ্বরের ১১ টি লক্ষণ বা উপসর্গ দিয়েছি। যা কোন ব্যক্তিকে আক্রান্ত করার দুই থেকে সাত দিনের মধ্যে সবগুলো উপসর্গ দেখা দিবে। এতে করে যত সময় যাবে একান্ত ব্যক্তির লক্ষণ গুলো দ্রুত প্রকাশ পাবে।

ডেঙ্গু হলে করণীয় | ডেঙ্গু রোগের প্রতিকার

ডেঙ্গুজ্বর সহজে কোন রোগ এর লক্ষণ বা উপসর্গ দেখা দিলে অবশ্যই ডাক্তারের পরামর্শ নিতে হবে। ডাক্তারের পরামর্শ ছাড়া কোন প্রকার ওষুধ সেবন করা যাবে না। ডাক্তারের নির্দেশনা ছাড়া কোন প্রকার ওষুধ সেবন করলে অথবা কারো পরামর্শ নিয়ে ওষুধ সেবন করলে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই আক্রান্ত ব্যক্তি মারাত্মক ক্ষতির সম্মুখীন হয়ে থাকে। তাই আক্রান্ত হলে অবশ্যই বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে ওষুধ সেবন করবেন। তবে একটা কথা মনে রাখবেন। ডেঙ্গু জ্বরের কোন সুনির্দিষ্ট চিকিৎসা নেই। তবে এটি কিছু নিয়ম মেনে প্রতিরোধ করতে পারেন। ডেঙ্গু জ্বরের প্রতিকার এ বা ডেঙ্গু জ্বর হলে করণীয় জেনে নিন।

  • ১। ডেঙ্গু জ্বর কমানোর জন্য শুধু প্যারাসিটামল বা এ জাতীয় ওষুধ সেবন করতে পারেন।
  • ২। ডেঙ্গু জ্বরের মাত্রার উপর নির্ভর করে 6 থেকে 8 ঘণ্টা পর পর এই ওষুধ ব্যবহার করতে হবে।
  • ৩। ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে একজন প্রাপ্তবয়স্ক ব্যক্তির দিনে চারটি প্যারাসিটামল হলে ওষুধ খেতে পারেন। অতিরিক্ত সেবন করলে লিভারের সমস্যাসহ নানা ধরনের জটিলতায় পড়তে পারেন।
  • ৪। অনেকেই ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হলে ব্যথা নাশক ওষুধ খেয়ে থাকেন। যা এটা কোনভাবেই করা যাবে না অর্থাৎ ডেঙ্গু জ্বর এ আক্রান্ত হলে ব্যথা নাশক ওষুধ সেবন করা থেকে বিরত থাকতে হবে।
  • ৫। ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে শরীর প্রচন্ড গরম হলে সুতি কাপড় পানিতে ভিজিয়ে শরীর মুছে দিতে পারেন। অথবা যদি ব্যক্তি গোসল করতে পারে তাহলে গোসল করানো যাবে।
  • ৬। ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে গেলে অবশ্যই তাকে বিশ্রাম নেওয়া উচিত।
  • ৭। ডেঙ্গু জ্বর হলে রোগীকে প্রচুর প্রোটিন ও আয়রন সমৃদ্ধ খাবার খেতে হবে। এছাড়া প্রচুর পরিমাণে পানি, স্যালাইন, সুপ, ডাবের পানি, ফলের রস এবং দুধ হচ্ছে ডেঙ্গু রোগীর খাবার।
ডেঙ্গু রোগের লক্ষণ ও প্রতিকার ২০২৩

ডেঙ্গু প্রতিরোধে আমাদের সবার করণীয়

ডেঙ্গু একটি মশা বাহিত রোগ এবং এটি ডেঙ্গু ভাইরাস দ্বারা আক্রমণ করে থাকে মানুষকে। তাই মশার কামড়ে হাত থেকে নিজেকে এবং আপনার পরিবারকে বাঁচাতে হবে। ডেঙ্গু প্রতিরোধে বাড়ির চারপাশে পানি জমতে দিবেন না এবং পানি জমে গেলে মশা বংশবিস্তার করে থাকে। বিশেষ করে যে সকল জায়গায় পানি জমে থাকে যেমন গাছের টপ, ফুলদানি, গাড়ি টায়ারের জমে থাকা পানি ফেলে দিন।

ডেঙ্গু প্রতিরোধে শরীরে ঢাকা জামা কাপড় যেমন লম্বা হাতার শার্ট, লম্বা প্যান্ট, মোজা এবং জুতা পড়ুন। ডেঙ্গু মশার বিস্তার যেখানে বেশি সেখানে যাওয়া থেকে বিরত থাকুন। রাতে শোবার সময় অবশ্যই মশারি ব্যবহার করুন। এবং মশা নিরোধক কেমিক্যাল যেমন পারম্যাথ্রিন ব্যবহার করুন।

ডেঙ্গু রোগের লক্ষণ ও প্রতিকার ২০২৩

ডেঙ্গুজ্বর সম্পর্কে কিছু জানা অজানা প্রশ্ন ও উত্তর জেনে নিন

১। ডেঙ্গু জ্বর কত দিন থাকে?
একজন সুস্থ ব্যক্তির শরীরে ডেঙ্গু জ্বর আক্রান্ত হলে।সেই ব্যক্তি শরীরে ডেঙ্গু জ্বর সাধারণত তিন থেকে ছয় দিন পর্যন্ত থাকতে পারে।

২। ডেঙ্গু হলে করণীয় কি?
প্রচুর পরিমাণে বিশ্রাম নিতে হবে। এবং
প্রচুর পরিমাণে তরল খাবার ডাবের পানি, লেবুর রস, ফলের রস এবং লবন পানি পান করতে হবে।

৩। ডেঙ্গু জ্বর হলে কি খেতে হবে?
ডেঙ্গু জরে আক্রান্ত ব্যক্তির খাবারে তালিকা হচ্ছে আক্রান্ত ব্যক্তির কমলা, জাম্বুরা, আনারস, লেবু ও অন্যান্য টক জাতীয় ফল খাবার তালিকায় রাখা উচিত। এছাড়া পশু পরিমাণে তরল খাবার খেতে হবে। যেমন স্যালাইন, ডাবের পানি, লেবুর রস, ফলের রস, লবণ পানি পান করতে হবে।

৪। ডেঙ্গু রোগের ঘরোয়া চিকিৎসা কি?

ডেঙ্গু রোগের লক্ষণ এবং ডেঙ্গু রোগের ঘরোয়া চিকিৎসা সম্পর্কে উপরে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে। ডেঙ্গু রোগের ঘরোয়া চিকিৎসা সম্পর্কে জানতে উপরে দেখুন।

৫। ডেঙ্গু জ্বর হলে কি গোসল করা যাবে?
ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হলে শরীর এমনিতেই অনেক তাপমাত্রা বেড়ে যায়। এতে করে আক্রান্ত ব্যক্তি শরীর সুতি কাপড় পানিতে ভিজিয়ে মুছে দিতে হয়। এমনকি আক্রান্ত ব্যক্তি চাইলে গোসল করতে পারবে কোন সমস্যা নেই।

৬। ডেঙ্গু রোগের ওষুধ কি?
ডেঙ্গু রোগীর নির্দিষ্ট কোন ওষুধ নেই। ডাক্তাররা মূলত প্যারাসিটামল জাতীয় ওষুধ দিয়ে যন্ত্রণা ও জ্বরের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করে থাকে। বেশি মাত্রায় জ্বর দেখা দিলে তাহলে দিনে সর্বোচ্চ চারটি প্যারাসিটামল সেবন করতে পারবে তবে অবশ্যই ডাক্তার পরামর্শ নিয়ে।

৭। ডেঙ্গু জ্বর কি ছোঁয়াচে রোগ?
ডেঙ্গু জ্বর মূলত ছোঁয়াচে রোগ নয়। আক্রান্ত ব্যক্তির গাঁয়ের মশার কামড় যদি অন্য ব্যক্তির গায়ে কামড় দিয়ে থাকে তাহলে সে ব্যক্তিকে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত করবে।

৮। ডেঙ্গু রোগের লক্ষণ চিকিৎসা কি?

উপরে আমরা ডেঙ্গু রোগের লক্ষণ ও চিকিৎসা সম্পর্কে আলোচনা করেছি। একটু কষ্ট করে উপরে গিয়ে ডেঙ্গু রোগের লক্ষণ ও চিকিৎসা দেখে নিন।

ডেঙ্গু জ্বরের লক্ষণ ও প্রতিকার সম্পর্কে আজ আর নয়। সম্মানিত পাঠক পাঠিকা বৃন্দ আমরা ডেঙ্গু রোগের লক্ষণ এবং ডেঙ্গু রোগের প্রতিকার। এছাড়া ডেঙ্গু হলে করণীয় কি ডেঙ্গুর ঘরোয়া চিকিৎসা ইত্যাদি সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করেছি। ডেঙ্গু রোগ সংক্রান্ত বিভিন্ন জানা অজানা প্রশ্ন ও উত্তর প্রদান করেছি। আশা করি আজকের আর্টিকেলটি পড়লে আপনি ডেঙ্গু জ্বর সম্পর্কে বিস্তারিত ধারণা রাখতে পারবেন।

Read More

Google News Follow
Google News Follow

Check Also

আজকের এশিয়া কাপ লাইভ খেলা | এশিয়া কাপ ভারত বনাম পাকিস্তান লাইভ | Asia Cup India vs Pakistan Live 2023

আজকের এশিয়া কাপ লাইভ খেলা | এশিয়া কাপ ভারত বনাম পাকিস্তান লাইভ | Asia Cup India vs Pakistan Live 2023

আজকের এশিয়া কাপ লাইভ খেলা | এশিয়া কাপ ভারত বনাম পাকিস্তান লাইভ: আজকের এশিয়া কাপ …

সকল বোর্ড এইচএসসি ইতিহাস ২য় পত্র প্রশ্ন সমাধান ২০২৩ | HSC History 2nd Paper MCQ Solution 2023

ঢাকা বোর্ড এইচএসসি ইতিহাস ২য় পত্র প্রশ্ন সমাধান ২০২৩ | HSC History 2nd Paper MCQ Solution 2023

ঢাকা বোর্ড এইচএসসি ইতিহাস ২য় পত্র প্রশ্ন সমাধান ২০২৩ | HSC History 2nd Paper MCQ …

এইচএসসি যশোর গৃহ ব্যবস্থাপনা ও পারিবারিক জীবন ১ম পত্র প্রশ্ন সমাধান ২০২৩ | HSC Dhaka Board MCQ Solution 2023

যশোর বোর্ড hsc গৃহ ব্যবস্থাপনা ও পারিবারিক জীবন ১ম পত্র mcq | এইচএসসি যশোর গৃহ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *